বাংলাদেশের জাতীয় ও অন্যান্য বিশেষ দিবসসমূহ

সর্বশেষ আপডেট:

বাংলাদেশে জাতীয়ভাবে উদযাপিত ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ দিবসসমূহের তালিকা নিচে দেয়া হলো।

১ ফেব্রুয়ারি – বই দিবস?

১ জানুয়ারিজাতীয় বই/গ্রন্থ দিবস
২ জানুয়ারিজাতীয় সমাজসেবা দিবস
১০ জানুয়ারিবঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস
১৯ জানুয়ারিজাতীয় শিক্ষক দিবস
২০ জানুয়ারিশহীদ আসাদ দিবস
২৩ জানুয়ারিজাতীয় প্রশিক্ষণ দিবস
২৪ জানুয়ারিগণঅভ্যুত্থান দিবস
২৫ জানুয়ারিকম্পিউটারে বাংলা প্রচলন দিবস
২৮ জানুয়ারিসলঙ্গা দিবস
২ ফেব্রুয়ারিজাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবস
২ ফেব্রুয়ারিজাতীয় জনসংখ্যা দিবস
৪ ফেব্রুয়ারিজাতীয় ক্যান্সার দিবস
৫ ফেব্রুয়ারিজাতীয় গ্রন্থাগার দিবস
৭ ফেব্রুয়ারিবাংলা ইশারা ভাষা দিবস
১৩ ফেব্রুয়ারিকৃষিবিদ দিবস
১৪ ফেব্রুয়ারিসুন্দরবন দিবস
১৪ ফেব্রুয়ারিবাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস
১৮ ফেব্রুয়ারিশহীদ ড. জোহা দিবস
২১ ফেব্রুয়ারিশহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস
২৫ ফেব্রুয়ারিপিলখানা হত্যা দিবস
২৭ ফেব্রুয়ারিজাতীয় পরিসংখ্যান দিবস (২০২১ সালে প্রথম পালিত হয়)
২৮ ফেব্রুয়ারিজাতীয় ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস
১ মার্চজাতীয় বীমা দিবস (বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানের আলফা ইন্সুরেন্স কোম্পানিতে যোগদান করেন)
আগে ১ অক্টোবর পালিত হতো। ২০২০ সাল থেকে ১ মার্চ পালিত হচ্ছে।
২ মার্চজাতীয় পতাকা উত্তোলন দিবস।
২ মার্চজাতীয় ভোটার দিবস (আগে ১ মার্চ ছিল) (২০১৯ সালে প্রথম পালিত)
৪ মার্চটাকা দিবস
৬ মার্চজাতীয় পাট দিবস
৭ মার্চজাতীয় ঐতিহাসিক দিবস (ক শ্রেণিভুক্ত) (২০২১ সালে প্রথমবারের মতো রাষ্ট্রীয়ভাবে পালিত হয়)
৮ মার্চজাতীয় নারী দিবস
১০ মার্চজাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস (১৯৯৭ সাল থেকে মার্চ মাসের শেষ বৃহস্পতিবার পালিত হতো। ২০১৬ সাল থেকে ১০ মার্চ পালিত হয়ে আসছে।)
১৭ মার্চজাতীয় শিশু দিবস (বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন)
২৩ মার্চজাতীয় পতাকা দিবস
২৫ মার্চগণহত্যা দিবস
২৬ মার্চস্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস
৩ এপ্রিলজাতীয় চলচ্চিত্র দিবস
৬ এপ্রিলজাতীয় ভোক্তা অধিকার দিবস
৬ এপ্রিলজাতীয় ক্রীড়া দিবস
৮ এপ্রিলবাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন প্রতিষ্ঠা দিবস (পিএসসি দিবস)
৮ এপ্রিলবাংলাদেশ স্কাউটস দিবস (২০২২ সালে প্রথম পালিত)
১৪ এপ্রিলপহেলা বৈশাখ বা বাংলা নববর্ষ (১ বৈশাখ)
১৭ এপ্রিলমুজিবনগর দিবস
১৮ এপ্রিলপররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দিবস
২৬ এপ্রিলকমিউনিটি ক্লিনিক প্রতিষ্ঠা দিবস
২৮ এপ্রিলজাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস।
২৮ এপ্রিলজাতীয় পেশাগত স্বাস্থ্য ও সেফটি দিবস
১৬ মেফারাক্কা লংমার্চ দিবস বা ঐতিহাসিক ফারাক্কা দিবস
২৩ মেজাতীয় নৌ নিরাপত্তা দিবস
২৮ মেনিরাপদ মাতৃত্ব দিবস
৪ জুনজাতীয় চা দিবস (প্রথম বাঙালি চেয়ারম্যান হিসেবে বঙ্গবন্ধু চা বোর্ডে যোগ দেন) ২০২১ সালে প্রথমবারের মতো পালিত হয়।
৭ জুনঐতিহাসিক ছয়-দফা দিবস
১৩ জুননারী উত্ত্যক্তকরণ প্রতিরোধ দিবস বা ইভ টিজিং প্রতিরোধ দিবস
২৩ জুনপলাশী দিবস
১ জুলাইঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস
২৩ জুলাইজাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস
৯ আগস্টজাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস (বঙ্গবন্ধু ৫টি গ্যাসক্ষেত্র ক্রয় করেন)
১৫ আগস্টজাতীয় শোক দিবস
১৮ আগস্টঐতিহাসিক নানকার বিদ্রোহ দিবস
১৭ সেপ্টেম্বরঐতিহাসিক শিক্ষা দিবস
২৪ সেপ্টেম্বরমীনা দিবস
৩০ সেপ্টেম্বরজাতীয় কন্যাশিশু দিবস
২ অক্টোবরজাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস।
২ অক্টোবরপথশিশু দিবস বা সুবিধাবঞ্চিত শিশু দিবস
৫ অক্টোবরশিক্ষক দিবস
৬ অক্টোবরজাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস
৯ আগস্ট ২০২১ মন্ত্রিসভার বৈঠকে ৬ অক্টোবরকে “জাতীয় জন্ম নিবন্ধন দিবস”-এর পরিবর্তে “জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস” করা হয়।
৯ অক্টোবরজাতীয় তামাকমুক্ত দিবস
১৮ অক্টোবরশেখ রাসেল দিবস
২২ অক্টোবরজাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস
নভেম্বরের প্রথম শনিবারজাতীয় সমবায় দিবস
১ নভেম্বরজাতীয় যুব দিবস
১ নভেম্বরজাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ দিবস
১ নভেম্বরদস্যুমুক্ত সুন্দরবন দিবস
২ নভেম্বরজাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরণোত্তর চক্ষুদান দিবস
৩ নভেম্বরজেলহত্যা দিবস
৪ নভেম্বরসংবিধান দিবস
৭ নভেম্বরজাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস
১০ নভেম্বরশহীদ নূর হোসেন দিবস বা স্বৈরাচার বিরোধী দিবস
১৫ নভেম্বরজাতীয় কৃষি দিবস (১ অগ্রহায়ণ)
২১ নভেম্বরসশস্ত্রবাহিনী দিবস
৩০ নভেম্বরজাতীয় আয়কর দিবস (আগে ছিলো ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সাল থেকে ৩০ নভেম্বর পালিত হচ্ছে)
১ ডিসেম্বরমুক্তিযোদ্ধা দিবস
৩ ডিসেম্বরজাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস
৩ ডিসেম্বরবাংলা একাডেমি দিবস
৪ ডিসেম্বরজাতীয় বস্ত্র দিবস
৬ ডিসেম্বরস্বৈরাচার পতন দিবস বা সংবিধান সংরক্ষণ দিবস
৮ ডিসেম্বরজাতীয় যুব দিবস
৯ ডিসেম্বরবেগম রোকেয়া দিবস
১০ ডিসেম্বরজাতীয় ভ্যাট/মূসক দিবস
১২ ডিসেম্বরডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস
১৪ ডিসেম্বরশহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস
১৬ ডিসেম্বরমহান বিজয় দিবস
১৮ ডিসেম্বরবাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট দিবস
১৯ ডিসেম্বরবাংলা ব্লগ দিবস
২০ ডিসেম্বরবর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) দিবস

জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস:

১৯৯৭ সাল থেকে মার্চ মাসের শেষ বৃহস্পতিবার সারাদেশে জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস পালিত হতো। এরপর দিবসটিকে ‘গ’ শ্রেণিভুক্ত করে ২০১২ সালের ৭ নভেম্বর মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেওয়া হয়। এভাবে চলে আসার একপর্যায়ে ২০১৫ সালে মার্চের শেষ সপ্তাহের বৃহস্পতিবারে মহান স্বাধীনতা দিবস পড়ে। একই দিনে দুটি গুরুত্বপূর্ণ দিবস পড়ায় সমস্যার সৃষ্টি হয় সংশ্লিষ্টদের জন্য।

এ কারণে ওই বছর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের বিশেষ সম্মতিতে ৩১ মার্চ জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস পালন করা হয়। মন্ত্রিপরিষদের ওই সম্মতিপত্রে সুবিধাজনক অন্য কোনো তারিখে দিবসটি পালন করার ব্যাপারে অনুশাসন দেওয়া হয়।

২০১৬ সালে যাচাই-বাছাইয়ের পর জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস পালনের জন্য ১০ মার্চ নির্বাচন করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। কারণ এদিন জাতীয় বা আন্তর্জাতিক পর্যায়ের কোনো দিবস নেই। ওই বছর থেকে ১০ মার্চ জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস পালিত হয়ে আসছে। (সূত্র: ঢাকা পোস্ট)

সপ্তাহ:

৪-১০ এপ্রিল ২০২১: জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ ২০২১

৭-১৩ এপ্রিল ২০২১: নৌ নিরাপত্তা সপ্তাহ

২৮ আগস্ট-৩ সেপ্টেম্বর: জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ

১০-১৫ ডিসেম্বর ২০২০: জাতীয় ভ্যাট সপ্তাহ

মাস:

অক্টোবর: জাতীয় স্যানিটেশন মাস

শেয়ার, কমেন্ট, মেইল বা প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।